প্রচ্ছদ

মেয়াদর্ত্তীর্ণ খেজুর জব্দ করায় ম্যাজিস্ট্রেট অবরুদ্ধ সুনামগঞ্জে

০৯ মে ২০১৯, ০৮:০৯

সোনালী সিলেট
মেয়াদর্ত্তীর্ণ খেজুর জব্দ করায় ম্যাজিস্ট্রেট অবরুদ্ধ সুনামগঞ্জে

সোনালী সিলেট ডেস্ক ::: সিলেটের সুনামগঞ্জ পৌর শহরে ভেজাল বিরোধী অভিযানের সময় ১৫ মণ মেয়াদর্ত্তীর্ণ খেজুর জব্দ করতে গিয়ে ব্যবসায়ীদের তোপের মুখে পড়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ম্যাজিস্ট্রেট রাহুল চন্দ। এসময় ফল ব্যবসায়ীরা প্রায় এক ঘণ্টা সুনামগঞ্জ ফলবাজার সংলগ্ন গর্ণপূর্ত বিভাগের অফিসার্স কোর্য়াটের ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেটকে অবরুদ্ধ রেখে বিক্ষোভ করেন।

বুধবার (৮মে) বেলা সাড়ে ৩টায় শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে ভেজাল বিরোধী অভিযান বন্ধের দাবিতে ব্যবসায়ীরা দোকানপাট বন্ধ করে বিক্ষোভ করে।

প্রত্যক্ষদর্শী, ব্যবসায়ী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহুল চন্দ বুধবার বিকেলে শহরের ট্রাাফিক পয়েন্ট এলাকায় ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনা করতে যান। এসময় বেশ কয়েকটি ফলের দোকান থেকে ভ্রাম্যামান আদালত মেয়াদর্ত্তীর্ণ ১৫মন খেজুর জব্দ করেন। খেজুর জব্দের পর দুই ব্যবাসয়ীকে ৫০০টাকা করে জরিমানাও করেন ভ্রাম্যমান আদালত। কিন্তু ব্যবসায়ীদের দাবি জব্দ করা খেজুরের মেয়াদ ২০২০ সাল পর্যন্ত রয়েছে। এ নিয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের সাথে ব্যবসায়ীদের কথা কাটাকাটি হয়। তারা জব্দ করা খেজুর ফেরত দেওয়ার দাবি জানান। কিন্তু কর্তব্যরত ম্যাজিস্ট্রেট তাদের দাবি মেনে না নেওয়ায় বাজারের সবগুলো ফলের দোকান বন্ধ করে ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়ি ঘিরে রেখে বিক্ষোভ শুরু করেন ব্যবসায়ীরা। বিক্ষোভের মুখে ফলবাজার সংলগ্ন গর্ণপূর্ত বিভাগের অফিসার্স কোর্য়াটের গাড়ি নিয়ে ঢুকেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহুল। ফল ব্যবসায়ীরা প্রায় এক ঘণ্টা তাকে সেখানে অবরুদ্ধ রেখে বিক্ষোভ করেন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ এসে তাকে ঘটনাস্থল থেকে নিয়ে যায়।

ফল ব্যবসায়ী রাজীব রায় বলেন, আমাদের খেজুরের মেয়াদ থাকার পরও আদালত তা জব্দ করে নিয়ে গেছে, রোজার প্রথম দিন থেকেই ভ্রাম্যামান আদালত অভিযানের নামে হয়রানি করছে ব্যবসায়ীদের। আমার ভেজাল বিরোধী অভিযান বন্ধের দাবি জানিয়ে দোকানপাট বন্ধ রেখেছি।

সুনামগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ি সমিতির সাধারণ সম্পাদক জাহেদ হাসান বলেন, ফল বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত খেজুর জব্দ করেন। জব্দকৃত খেজুরের মেয়াদ আছে বলে দাবি করে গাড়ি আটকে রাখে বিক্ষোব্ধ ব্যবসায়িরা। আমরা এ বিষয়টি সমঝতা করা চেষ্টা করি। স্থানীয় ব্যবসায়ি ও পুলিশের সহযোগিতায় পরিস্থিতি শান্ত করা হয়।

এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. শহিদুল্লাহ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সুনামগঞ্জ কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহুল চন্দ বলেন, নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে ফল বাজারে যায় ভ্রাম্যামান আদালত। অভিযানে কয়েকটি দোকানের মেয়াদর্ত্তীর্ণ ১৫মন পচা খেজুর জব্দ ও দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়। এসময় কিছু ব্যবসায়ী চিৎকার চেচামেচি করে বলে তিনি জানান।

সুনামগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক শফিউল আলম বলেন, ভোক্তার অধিকার সংরক্ষণ আইনে বাজারে ভ্রাম্যমান আদালতের কাজে যারা বাঁধা প্রদান করেছে সনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com